এপ্লিকেশন ও সিস্টেম মনিটরিং: ডেভ অপস - ৫

dev-opsmonitoring


শুধু এপ্লিকেশন বানানো আর ডেপ্লয়মেন্ট করলেই হবে না, মনিটরিং হচ্ছে ডেভ অপসের অন্যতম একটা কাজ। নিচে বিভিন্ন ধরণের মনিটরিং দেয়া হলো। এপ্লিকেশন এবং এর নেচার এর উপর নির্ভর করে মনিটরিং ইমপ্লিমেন্ট করতে হবে।


- এপ্লিকেশনের কোড রিলেটেড মনিটরিং: যেমন লগ দেখা, এনালাইয করা এবং লগ ডাটার উপর সার্চ করা। এপ্লিকেশনের কোড রিলেটেড মনিটরিং এর জন্য ELK Stack ব্যবহার করা যেতে পারে। আমি ELK Stack পছন্দ করি।


- পারফর্মেন্স মনিটরিং: এটা হচ্ছে প্রতিটা রিকোয়েস্ট সার্ভ করতে কি পরিমান সময় লাগতেছে, তা দেখা। এটা মাইক্রো সার্ভিসে বেশি দরকারি। Zipkin টুলস দিয়ে এই কাজ করা যায়। আরো অনেক টুলস আছে।


- এপ্লিকেশন মেট্রিক্স বা ডাটা মনিটরিং: কত জন ইউজার রেজিস্টার হচ্ছে, কত জন লগইন করছে প্রতিদিন বা কত টাকা সেল হচ্ছে ইত্যাদি। ডাটা মনিটরিং করার কাজে Grafana ব্যবহার করা যেতে পারে। আর টাকা খরচ করতে চাইলে DataDog আছে।



- রিসোর্স মনিটরিং: এটা হচ্ছে কতগুলা কম্পিউটার ব্যবহার হচ্ছে, ডিস্ক স্পেস ফাঁকা আছে কিনা, অযথা কোন রিসোর্স পরে আছে কিনা, কোন সার্ভিস ডাউন আছে কিনা ইত্যাদি চেক করা। সাধারণত ক্লাউড প্রোভাইডার এই মেট্রিক্স ডাটা দিয়ে থাকে( আমাজন, গুগল.... )


ধন্যবাদ।